Samsung Galaxy S20, Samsung Galaxy S20 Plus and Samsung Galaxy S20 Ultra in Table

স্যামসাং-এর নতুন ফ্ল্যাগশিপ মোবাইল: Galaxy S20, Galaxy S20 Plus এবং Galaxy S20 Ultra

ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন জগতে প্রতিটা নতুন বছর শুরু হয় স্যামসাং-এর নতুন ফ্ল্যাগশিপ ফোনের মাধ্যমে। আকর্ষণীয় সব ফিচার নিয়ে স্যামসাং-এর নতুন সব ফোন সারা বছরের আলোচনার শীর্ষে থাকে। এবছর স্যামসাং তাদের ফ্ল্যাগশিপ মোবইলকে যেন অন্য এক উচ্চতায় নিয়ে গেছে। অকল্পনীয় স্পেসিফিকেশন দিয়ে স্যামসাং নিজেকে এক নতুন স্ট্যান্ডার্ড হিসাবে স্থাপন করেছে।
২০২০ একটি নতুন দশকের সূচনা তাই স্যামসাং এবার গতানুগতিক গ্যালাক্সি এস এলিভেন নাম না রেখে, এবার নাম রেখেছে স্যামসাং গ্যালাক্সি এস টুয়েন্টি।

এবার তিনটি ফোন এনেছে স্যামসাং:

  • স্যামসাং গ্যালাক্সি এস টুয়েন্টি
  • স্যামসাং গ্যালাক্সি এস টুয়েন্টি প্লাস
  • স্যামসাং গ্যালাক্সি এস টুয়েন্টি আল্ট্রা

কি থাকছে এবারের স্যামসাং গ্যালাক্সা এস টুয়েন্টি সিরিজের ফোন গুলোতে তা আজ আপনাদের জানাবো।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস টুয়েন্টি | Samsung Galaxy S20

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস টুয়েন্টি মোবাইল ফোনটিতে স্যামসাং ব্যাবহার করেছে ৬.২ ইঞ্চির ডাইনামিক এমোলেড কোয়াড এইচডি (QHD+) রেজুলুশনের ১২০হার্জ রিফ্রেশ রেটের ডিসপ্লে।

Samsung Galaxy S20 and Samsung Galaxy S20 Plus
Samsung Galaxy S20 and Samsung Galaxy S20 Plus

এতে ১০মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরার পাশাপাশি পেছনে থাকছে ৩টি ক্যামেরা।

  • ১২ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা ওয়াইড ক্যামেরা।
  • ১২ মেগাপিক্সেলের প্রধান ক্যামেরা।
  • ৬৪ মেগাপিক্সেলের টেলিফটো ক্যামেরা।

এটি দারা ৩ গুন পর্যন্ত অপটিকাল জুম এবং ৩০গুন পর্যন্ত ডিজিটাল জুম করা যাবে। এটিতে ৮কে (8K) ভিডিও রেকর্ড করা যাবে এবং ৯৬০ ফ্রেম পার সেকেন্ডে স্লোমোশন ভিডিও রেকর্ড করা যাবে। এতে থাকছে ৪০০০ মিলি আম্পিয়ার ব্যাটারি।
স্যামসাং গ্যালাক্সি এস টুয়েন্টি 4G এবং 5G দুটি ভার্সনে পাওয়া যাবে। 4G ভার্সনে থাকছে ৮ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ এবং 5G ভার্সনে থাকছে ১২ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস টুয়েন্টি এর সম্পূর্ন স্পেসিফিকেশন, দাম ও রিভিউ জানতে এই লিংকে ক্লিক করুন।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস টুয়েন্টি প্লাস | Samsung Galaxy S20+

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস টুয়েন্টি প্লাস ( S20 Plus) মোবাইল ফোনটিতে ব্যাবহার করা হয়েছে ৬.৭ ইঞ্চির ডাইনামিক এমোলোড QHD+ রেজুলুশনের ১২০ হার্জ রিফ্রেশরেটের বিশাল ডিসপ্লে।
এটিতেও ১০মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা ব্যাবহার করা হয়েছে। তবে পেছনে থাকছে ৪টি ক্যামেরা:

  • ১২ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা ওয়াইড ক্যামেরা।
  • ১২ মেগাপিক্সেলের প্রধান ক্যামেরা।
  • ৬৪ মেগাপিক্সেলের টেলিফটো ক্যামেরা।
  • ডেপ্থ-ভিশন ক্যামেরা।
Samsung Galaxy S20 Plus
Samsung Galaxy S20 Plus

এতে থাকছে ৪৫০০ মিলি অাম্পিয়ারের বিশাল ব্যাটারি। এর বাদবাকি স্পেসিফিকেশন এর ছোটভাই স্যামসাং গ্যালাক্সি এস টুয়েন্টি-এর অনুরূপ।
স্যামসাং গ্যালাক্সি এস টুয়েন্টি প্লাস 4G এবং 5G দুটি ভার্সনে পাওয়া যাবে। 4G ভার্সনে থাকছে ৮ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ। 5G ভার্সনে ৩টি অপশন থাকছে।

  • ১২ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ।
  • ১২ জিবি র‍্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজ।
  • ১২ জিবি র‍্যাম ও ৫১২ জিবি স্টোরেজ।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস টুয়েন্টি প্লাস এর সম্পূর্ন স্পেসিফিকেশন, দাম ও রিভিউ জানতে এই লিংকে ক্লিক করুন।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস টুয়েন্টি আল্ট্রা | Samsung Galaxy S20 Ultra

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস টুয়েন্টি সিরিজে স্যামসাং কল্পনাতীত ফিচার এবং স্পেসিফিকেশন দিয়েছে। এতে থাকছে ৬.৯ ইঞ্চির ডায়নামিক এমোলেড কোয়াড এইচডি প্লাস রেজুলুশনের ১২০হার্জ রিফ্রেশ রেটের ডিসপ্লে। আইপ্যাড মিনি-এর ডিসপ্লে সাইজও এই ফোনের সমান ছিলো!
গ্যালাক্সি এস টুয়েন্টি আলট্রাতে থাকছে ৪০মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা আর পেছনে থাকছে ৪টি ক্যামেরা!

  • ১২ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা ওয়াইড ক্যামেরা।
  • ১০৮ মেগাপিক্সেলের প্রধান ক্যামেরা।
  • ৪৮ মেগাপিক্সেলের টেলিফটো ক্যামেরা।
  • ডেপ্থভিশন ক্যামেরা।
Samsung Galaxy S20 Ultra Camera
Samsung Galaxy S20 Ultra Camera

গ্যালাক্সি এস টুয়েন্টি আল্ট্রা-এর টেলিফটো ক্যামেরাটিতে পেরিস্কোপ জুম লেন্স ব্যাবহার করা হয়েছে তাই এটি ১০গুন পর্যন্ত হাইব্রিড অপটিক জুম এবং ১০০গুন পর্যন্ত ডিজিটাল জুম করতে সক্ষম।
এটিতে থাকছে ৫০০০মিলি অাম্পিয়ারের আল্ট্রা বিশাল ব্যাটারি যা ৪৫ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে।
এত বড় বড় ফিচার ছাড়াও এতে গ্যালাক্সি এস টুয়েন্টি প্লাস-এর সব ফিচার থাকছে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস টুয়েন্টি আল্ট্রা 4G এবং 5G দুটি ভার্সনে পাওয়া যাবে। 4G ভার্সনে ৩টি অপশন রয়েছে:

  • ১২ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ।
  • ১২ জিবি র‍্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজ।
  • ১৬ জিবি র‍্যাম ও ৫১২ জিবি স্টোরেজ।

5G ভার্সনেও অনুরূপ তিনটি অপশন রয়েছে:

  • ১২ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ।
  • ১২ জিবি র‍্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজ।
  • ১৬ জিবি র‍্যাম ও ৫১২ জিবি স্টোরেজ।
Samsung Galaxy S20 Ultra Front and back
Samsung Galaxy S20 Ultra

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস টুয়েন্টি আল্ট্রা এর সম্পূর্ন স্পেসিফিকেশন, দাম ও রিভিউ জানতে এই লিংকে ক্লিক করুন।


সবসময় প্রযুক্তি জগতের সকল নির্ভরযোগ্য খবর জানতে আমাদের সাথে থাকুন। আমরা সবচেয়ে বেশি পরিমান তথ্য আমাদের ইউজারদের কাছে তুলে দিই, যাতে আপনারা সবচেয়ে সেরা ডিভাইসটি পছন্দ করে নিতে পারেন।
আমাদের ফেসবুক পেজ এবং ফেসবুক গ্রুপে যোগ দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন।